ডেস্ক নিউজঃ ছয় দিনের মাথায় আবারোও চিরকুটসহ গণধর্ষণ মামলার আসামির আরোও একটি গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার দুপুরে ঝালকাঠির রাজাপুর সদর ইউনিয়নের আঙ্গারিয়া গ্রামের একটি পরিত্যক্ত ভাটা থেকে এ লাশ উদ্ধার করে রাজাপুর থানা পুলিশ।

জানা যায়, নিহতের নাম রাকিব আহমদ এবং সে পার্শ্ববর্তী পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলার নদমুলা গ্রামের বাসিন্দা.। সে ভান্ডারিয়া থানার এক স্কুলছাত্রী গণধর্ষণ মামলার আসামি বলে পুলিশ প্রাথমিকভাবে জানিয়েছেন।

রাজাপুর থানার ওসি/তদন্ত মঈদুদ্দিন জানান, দুপুরে লাশ পরে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয় স্থানীয়রা। রাজাপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মাথায় জখমের চিহ্ন অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করে।

নিহতের বুকে একটি কাগজের চিরকুট লেখা রয়েছে “আমি পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ার কারিমা আক্তারের ধর্ষক রাকিব। ধর্ষণের পরিনতি ইহাই। ধর্ষকরা সাবধান। হারকিউলিস।

পুলিশের উধ্বর্তন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান ওসি।

এর আগে গত সপ্তাহে ঝালকাঠিতে সজল জোমাদ্দার (২৮) নামে ধর্ষণের আরেক আসামির লাশ উদ্ধার করা হয়েছিল। সেই লাশের গায়েও চিরকুট ছিল, আমার নাম সজল… মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণ করার কারণে আমার এই পরিণতি’। সজলের বাড়ি পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়া উপজেলার নদমুলা গ্রামে।

রাকিব নামের এক গণধর্ষণ মামলার আসামির গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

শেয়ার করুনঃ