গোলাপগঞ্জের বাঘা দৌলতপুর গ্রামের জাহেদ আহমদের উপর অমানুষিক নির্যাতন ও চোখে চুন দিয়ে অন্ধ করার প্রতিবাদে সাংবাদিক সম্মেলন করেছে এলাকাবাসী।

গতকাল (মঙ্গলবার) বিকেলে পৌরসভা অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত সাংবাদিক সম্মেলনে এলাকাবাসীর পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সমাজ সেবক বাহা উদ্দিন।


বাহা উদ্দিন তার বক্তব্যে ছানু মিয়াসহ সহযোগীদের ফাঁসির দাবী করে উল্লেখ করেন, গত ৯ ফেব্রুয়ারী সন্ধ্যায় বাঘা রস্তমপুর গ্রামের হাসন আলীর পুত্র এলাকার বহু অপকর্মের হোতা রস্তমপুর গ্রামের রাইয়ুব উরফে ছানু মিয়া দৌলতপুর গ্রামের বাছই মিয়ার পুত্র জাহেদ আহমদ (২৫)কে জরুরী কাজের কথা বলে নিজ বাড়ীতে নিয়ে তার অপকর্মের সহযোগীদের সহায়তায় অমানুষিক নির্যাতন করে। শুধু শারিরীক ভাবে নির্যাতন করে ক্রান্ত হয়নি হাত পা বেধে সন্ত্রাসীরা তার বুকের উপর উঠে চোখে চুন দিয়ে দুটি চোখ নষ্ট করে দেয়। তাদের নির্যাতনের কাহিনী মধ্যযুগীয় বর্বরতাকেও হার মানিয়েছে। এসময় নিরীহ যুবক জাহেদ তার দুটি চোখ রক্ষার জন্য অনেক আকুতি মিনতি করলেও পাষন্ডরা কোন কথা শুনতে চায়নি। তারা জাহেদকে মেরে লাশ বস্তাবন্দি করে পার্শ্ববর্তী সুরমা নদীতে ফেলে দেয়ার চেষ্ঠা করেছিল। এক পর্যায়ে তাকে অর্ধমৃত অবস্থায় সন্ত্রাসীরা স্থানীয় চেয়ারম্যান ছানা মিয়ার কাছে এনে বলে জাহেদসহ বেশকজন লোক ছানুমিয়ার বাড়ীতে ডাকাতির জন্য প্রবেশ করেছে, সহযোগীরা পালিয়ে গেলেও জাহেদ হাতে নাতে ধরা পড়ে। এসময় ছানু নিজেকে রক্ষা করতে বলে জনগন নাকি উত্তেজিত হয়ে জাহেদের চোখে চুন দিয়েছে। তখন এলাকাবাসী কৌশলে তাকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে। বর্তমানে কুখ্যাত সন্ত্রাসী বিভিন্ন অপকর্মের হোতা রাইয়ুব উরফে ছানু মিয়া কারাগারে রয়েছে।

লিখিত বক্তব্যে আরো উল্লেখ করা হয় , আমরা বাঘা এলাকার সর্বস্তরের জনগন এঘটনায় খুবই মর্মাহত ও ব্যথিত। রাইয়ুবের মত একটি কুলাঙ্গার জাহেদের মত এক নিরীহ যুবককে নির্মম ভাবে নির্যাতন করে তার দৃষ্টি শক্তি নষ্ট করে দেয়ায় আজ বাঘা এলাকার মানুষের সঙ্গে সারা দেশের মানুষ ব্যথিত। আমরা চাইনা জাহেদের মতো আর কেহ সন্ত্রাসীদের কবলে পড়ে দৃষ্টি শক্তি হারিয়ে সারা জীবনের জন্য অন্ধ হয়ে যাক। আমরা চাই কুখ্যাত হুন্ডি ব্যবসায়ী রাইয়ুবের যেন দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি হয়।

এসময় সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন কাপ্তাই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যন মহির উদ্দিন, সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল কাদের সেলিম, সুলেমান আলী, হাজী মোহাম্মদ দুলু মিয়া, জয়বুর রহমান, নজরুল ইসলাম, ফয়জুর রহমান, আব্দুল হাকিম পারভেজ, জাহাঙ্গীর আহমদ টিপু, ছাদ উদ্দিন প্রমুখ।

শেয়ার করুনঃ