গোলাপগঞ্জের বুধবারীবাজার ইউনিয়নের চন্দরপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক জনাব শফিউল আলম(৫০) মৃত্যুবরণ করেছেন, (ইন্নালিল্লাহি…রাজিউন)

আজ শনিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১১টায় তিনি সিলেটস্থ রয়েল হসপিটালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। মৃত্যকালে তিনি ১ স্ত্রী, ১পুত্রসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

আজ বাদ মাগরিব চন্দরপুর শাহী ঈদগাহ মাঠে মরহুমের জানাযা শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।

শিক্ষক শফিউল আলম দীর্ঘদিন থেকে কঠিন দুরারোগ্য ব্যাধিতে ভোগছিলেন। দেশের নামকরা হসপিটালসহ ভারতের চেন্নাইতে গিয়েও চিকিৎসা নিয়েছিলেন। কিন্তু সকল চিকিৎসাকে পেছনে ফেলে শনিবার সকাল ১১টায় তিনি পরলোকগমণ করেন।

শিক্ষক শফিউলের বাড়ি গোলাপগঞ্জ উপজেলার চন্দরপুর গ্রামে। পিতার নাম মরহুম ডাঃ আবু বকর। তাঁর পিতা পাকিস্তান আমলে Health Assistant পদে নামকরা সরকারী ডাক্তার ছিলেন।

মানুষ গড়ার কারিগর শফিউল দীর্ঘদিন থেকে নিজ গ্রামের চন্দরপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন।

এর পূর্বে তিনি আইন পেশায় পড়ালেখা করে বার কাউন্সিলর পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েও নিজ গ্রামে ছুটে আসেন শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দেয়ার মহান উদ্দেশ্য নিয়ে।

তিনি ছিলেন প্রাথমিক শিক্ষার একজন নিবেদিত প্রাণ। যিনি ছাত্রছাত্রীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে খোজ খবর নেয়া ছাড়াও বিদ্যালয় ছুটিকালীন সময়ে ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে পাঠদান করাতেন। একজন আদর্শ শিক্ষক হিসেবেই তিনি সর্বজন স্বীকৃত ছিলেন।

শেয়ার করুনঃ