প্রতিবেদন প্রস্তুতকারক: (ফখরুল ইসলাম শাকিল).

আজ ১৪ মার্চ বিশ্ব নদী রক্ষা দিবস। বিশ্বের প্রতিটি দেশের ন্যায় বাংলাদেশেও পালিত হচ্ছে দিনটি। কিন্তু দুঃখ হলেও সত্য গোলাপগঞ্জ উপজেলার ঢাকাদক্ষিণ ইউনিয়নের মধ্য দিয়ে ছোট-বড় বেশ কয়েকটি নদী প্রবাহিত হয়েছে। তন্মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল কুশিয়ারা নদী এবং কুড়া নদী।

এই নদীগুলোর উপ শিরা বা খাল হিসেবে উল্লেখযোগ্য হল কাকেশ্বরী, রাধাজুড়ি খাল।ঐতিহ্যবাহী পুরনো ঢাকাদক্ষিণ বাজারের বৃহৎ অংশই কাকেশ্বরী খাল বা নদীর উপর দিয়ে বয়ে গেছে। বলা বাহুল্য যে এ নদী বা খালের অনেক ঐতিহ্য ইতিহাস রয়েছে।

লোক মূখে শুনাযায় প্রায় ৩০ থেকে ৪০ বৎসর পূর্বে সিলেট জেলার গোলাপগঞ্জ উপজেলাধীন অন্যতম পাইকারি বাজার ছিল ঢাকাদক্ষিণ বাজার। এই জনপ্রিয়তা শীর্ষে পাইকারি বাণিজ্য হাঁটের সুনাম ছিল দেশ বিদেশে সর্বস্থলে। জনপ্রিয়তা বা হাঁট বসার কারণ খুঁজলে ইতিহাস তালাস করলে দেখা যায় বাজার সৃষ্টি হয়েছে কাকেশ্বরী খাল বা নদীর জন্যই।

এই খাল বা নদী দিয়েই এক সময় অনেক বড় বড় নৌকা মাল বোঝাই করে ভারত থেকে এই বাজারে আসত। যার কারনে জমজমাট বাণিজ্য হাঁটে পরিনত হয়েছিল ঢাকাদক্ষিণ বাজার। কিন্তু দুঃখ হলেও সত্য আজ এই নদী থেকে খাল, আর খাল থেলে আজ বিলিনের দ্বার প্রান্তে।

আর্বজনা ফেলে খাল ভরাট, অবৈধ স্থাপনা এবং ঘনত্ব হ্রাসের ফলে দিন দিন অস্থিত্ব সংকটের দিকে কাকেশ্বরী। গবীরতা হ্রাসের কারণে বর্ষাকালে নিম্ন ভিটার প্রতিষ্ঠানে পানি ডুকে লক্ষ লক্ষ টাকার মালামাল ক্ষয়ক্ষতি হয়। প্রতি বৎসর একই সমস্যার কারণে যেমন আর্থিক ক্ষতি তেমনি ব্যবসায়ীদের ভোগান্তি। সমস্যা নিরসনে বার বার জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করলেও নিরব ভূমিকায় রয়েছে কর্তৃপক্ষ। ঢাকাদক্ষিণ বাজারকে বাঁচাতে হলে এবং বন্যা পানি থেকে জলাশয় মুক্ত বাজার তৈরি করতে প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের উদ্যোগে খাল খননের ব্যবস্থা গ্রহণ অত্যাবশ্যক।

শেয়ার করুনঃ