ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকুস) ও হল সংসদের পুননির্বাচনের দাবি জানিয়েছেন নবনির্বাচিত সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুর। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সঙ্গে দেখা করে আসার একদিন পরে রোববার (১৭ মার্চ) বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ দাবি করেন।

নুর বলেন, শুরু থেকেই আমার অবস্থান স্পষ্ট ছিল। সাধারণ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে একমত পোষণ করে আমিও পুনর্নির্বাচন চাই।

২৮ বছর পর অনুষ্ঠিত ডাকসুর নির্বাচন ঢাবির ইতিহাস ঐতিহ্যে কালিমা লেপন করেছে। ভিপি প্রার্থী হয়ে আমি নিজেও হামলার শিকার হয়েছি। শিক্ষকরাই অনিয়মের সঙ্গে জড়িত ছিলেন।

এদিকে পাঁচ দফা দাবিতে আগামীকাল সোমবার (১৮ মার্চ) ক্লাস বর্জন ও উপাচার্যের কার্যালয়ের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করবে নির্বাচন বর্জনকারী প্যানেলগুলো। আলাদা সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন তারা।

দাবিগুলো হলো- ডাকসু নির্বাচন বাতিল, পুনঃতফসিল দেয়া, উপাচার্যের পদত্যাগ, মামলা প্রত্যাহার ও হামলাকারীদের বিচার।

নুর বলেন, পুনর্নির্বাচনের বিষয়ে ৫টি প্যানেল এক সাথেই আন্দোলন চালিয়ে যাবে।

নুরুল হক নুর বলেন, প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ ব্যক্তি। তার প্রতি শ্রদ্ধাবোধ থেকে আমি গণভবনে গিয়েছি। সেটি আমার সংগঠনের নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলেই গণভবনে গিয়েছি.

তিনি বলেন, ডাকসু নির্বাচনটা ঢাবির বিষয়, সরকারের নয়। নির্বাচিত হিসেবে আমাদের ডাকা হয়েছিল। আমি প্রধানমন্ত্রীর কাছে নির্বাচনের অনিয়ম নিয়ে বলেছি, এছাড়া আবাসন সমস্যাসহ ঢাবির সব সমস্যা নিয়েও আলোচনা হয়েছে।

শেয়ার করুনঃ