নিজস্ব প্রতিনিধি : গোলাপগঞ্জে সম্প্রতি কিছুদিন আগে হিজড়াদের চাঁদাবাজি নিয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হলেও টনক নড়েনি প্রশাসনের। হিজড়ারা অবলিলায় চাঁদাবাজি করেই যাচ্ছে। তাদের থেকে রেহাই পাচ্ছে না ব্যবসায়ী, গাড়ীচালক, যাত্রীসহ-জনসাধারণ ।

বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, দু’চার দিন পরপরই তারা উপজেলার গোলাপগঞ্জ বাজার, ঢাকাদক্ষিন বাজার, ভাদেশ্বর বাজারসহ বিভিন্ন বাজারে চাঁদাবাজি করে বেড়ায়। এ সময় কেউ চাঁদা দিতে না চাইলে বিভিন্ন খারাপ আচরণ ও গালিগালাজ করে। এর ফলে মানুষজনকে বিভিন্ন পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হয়।

রবিবার উপজেলার ঢাকাদক্ষিন বাজারে অনুষ্ঠিত ঐতিহ্যবাহী বারুণি মেলায়ও একদল হিজড়াদেরকে চাঁদাবাজি করতে দেখা যায়। তারা মেলার প্রতিটি দোকানে দোকানে চাঁদা তুলে, এসময় অনেক দোকানি চাঁদা না দিতে চাইলে তাদের মালপত্র তছনছ করে দেয়। মানসম্মানের ভয়ে কেউ কিছু বলতে পারে না। ৫ বা ১০ টাকা চাঁদা দিলেই তারা খুশি হয়ে চলে যায়।

হিমেল নামে মেলাতে আসা এক কলেজ ছাত্র জানান, এসব হিজড়াদের কারণে উপজেলাবাসী অতিষ্ঠ। প্রশাসন এই ব্যাপারে কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না। মা বোন সঙ্গে থাকলে এসব হিজড়াদের কারণে অনেক সময় বিরুপ পরিস্থিতির মুখে পড়তে হয়। আমরা এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি জানাচ্ছি।

শেয়ার করুনঃ