সোহেল আহমদঃ ফেনীর সোনাগাজীতে দগ্ধ মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির জানাজা সম্পন্ন হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টা ৫০ মিনিটে স্থানীয় মো. ছাবের সরকারী পাইলট হাইস্কুল মাঠে তার নামাজের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ইমামতি করেন তার বাবা একেএম মুসা।

নুসরাত জাহান রাফিকে শেষ বিদায় জানাতে হাজারও মানুষের ঢল নামে। স্থানীয় ও জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে আসা হাজারও মানুষ তার নামাজের জানাজায় অংশ নেন। জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাদির কবরের পাশে তাকে সমাহিত করা হয়।

এর আগে বিকাল সাড়ে পাঁচটায় গ্রামের বাড়িতে পৌঁছায় নিথর নুসরাতের লাশবাহী গাড়ি। উল্লেখ, বুধবার (১০ এপ্রিল) রাত সাড়ে নয়টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান দগ্ধ মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি।

গত ২৭ মার্চ নুসরাত জাহানকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে পরিবারের করা মামলায় এখন কারাগারে রয়েছেন মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজউদ্দৌলা।

এরপর ৬ এপ্রিল সকাল ৯টার দিকে আলিম (এইচএসসি) পর্যায়ের আরবি প্রথমপত্র পরীক্ষা দিতে সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে যান ওই ছাত্রী। এখানে কৌশলে তাকে পাশের ভবনের ছাদে ডেকে নেওয়া হয়। ওই সময় বোরকা পরিহিত ৪-৫জন তাকে অধ্যক্ষের উপর থেকে মামলা তুলে নেয়ার হুমকি প্রদান করে। মামলা তুলে নিতে অস্বীকৃতি জানালে নুসরাতের শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় তারা। এতে তার শরীরের ৮৫ শতাংশ পুড়ে যায়।

শেয়ার করুনঃ