ফেসবুক লাইভে এসে মুসলমানদের মহাগ্রন্থ পবিত্র কোরআন শরীফের পাতা ছিড়ে তা টয়লেটে নিক্ষেপ করেছে সেফাত উল্লাহ (সেফুদা)।

শুধু তা’ই নয়, মহানবী (সাঃ) এবং পবিত্র কাবাঘর নিয়েও কটুক্তি করেছে সে।

বুধবার(১৭ এপ্রিল) ফেসবুক লাইভে এসে বাংলাদেশী মডেল সাফা কবীর প্রসঙ্গে তার পক্ষ নিয়ে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানেন সেফুদা।

পরকালে বিশ্বাস নেই এমন মন্তব্যে গতকয়েকদিন থেকে সমালোচনার মুখে রয়েছেন সাফা কবির। তার এই মন্তব্যকে পুরোপুরি সাপোর্ট করে বুধবার লাইভে আসেন সাফাত উল্লাহ। লাইভে এসে ধর্ম নিয়ে অশ্লীল ভাষায় গালাগালি শুরু করে সেফুদা। পরে পবিত্র কোরআন শরীফের পাতা ছিড়ে তা টয়লেটে নিক্ষেপ করে সে। এসময় অশ্লীল ভাষায় নবী করিম (সাঃ) ও পবিত্র কাবাঘর নিয়েও কটুক্তি করে সেফুদা।

লাইভের একপর্যায়ে নুসরাত জাহান রাফি হত্যার প্রসঙ্গ তুলে মেয়ে হত্যার জন্য বাবা-মাকে দোষারোপ করে সেফুদা। কোরআন পড়া সিরাজ উদ্দৌলা রাফিকে হত্যা করেছে উল্লেখ করে অশ্লীল ভাষায় গালাগালি করতে থাকে সে। কোরআন পড়তে মেয়েকে মাদ্রাসায় পাঠানোর জন্য রাফির বাবা-মাকেও গালাগালি করে সেফুদা। রাফির বাবা-মা’র ইসলামিক পোশাকাদি নিয়েও কটুক্তি করে সে।

এদিকে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানায় ফুঁসে উঠছেন মুসলমানরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেফুদার বিরুদ্ধে পোস্ট করতে দেখা গেছে অনেককেই। অনেকেই আবার কমেন্ট করে সেফুদার শাস্তির দাবী করেছেন।

অনেক পোস্টে দেখা গেছে সেফুদাকে দেশে এনে কঠিন শাস্তির দাবী করা হয়েছে।

ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন

শেয়ার করুনঃ