ভোলার লালমোহন উপজেলার বদরপুর ইউনিয়নে ইউপি সদস্যের ঘরের মেঝে খুঁড়ে সরকারি চাল উদ্ধার করেছে পুলিশ। রবিবার (১২ এপ্রিল) সকালে ৯৯৯ ফোন পেয়ে লালমোহন থানা পুলিশ বদরপুর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড মেম্বার জুয়েলের ঘরের খাটের নিচে মেঝের খুঁড়ে ৭ বস্তা চাল উদ্ধার করে। এছাড়াও ওই ওয়ার্ডের চৌকিদার শাহ আলমের ঘর থেকে আরও ৬ বস্তা চাল উদ্ধার করা হয়। এসব চাল সরকারি খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির (এএমএস)।

ইউপি মেম্বার জুয়েল আত্মগোপন করলে তার বাবা সাবেক মেম্বার নান্নুকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ আটক করেছে। 

লালমোহন থানার ওসি মীর খায়রুল কবীর জানান, রবিবার সকাল ৬টার দিকে ৯৯৯ ফোন পাই। কলার বলেন, বদরপুর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড মেম্বার জুয়েলের ঘরে মাটির নিচে চাল লুকিয়ে রাখা হয়েছে। পরে আমরা ওই বাড়িতে অভিযান চালাই। এসময় জুয়েলের ঘরের খাটের নিচ থেকে মাটি খুড়ে ৫ বস্তা চাল ও ঘরের পেছন থেকে আরও ২ বস্তা চাল উদ্ধার করি। জুয়েলকে না পাওয়ায় তার বাবা নান্নুকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। একইসঙ্গে সরকারি খাদ্য অধিদফতরের নাম লেখা ৭টি খালি বস্তা ও ৭টি ওএমএস কার্ড পাওয়া যায় ওই ঘর থেকে। 

জানা গেছে, একদিন আগে শনিবার  একই ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড মেম্বার ওমর এর এলাকা থেকে বিভিন্ন বাড়িতে ও স-মিলের কাঠের গুড়োর মধ্যে লুকিয়ে রাখা আরও ১৫ বস্তা চাল উদ্ধার করা হয়। ওই ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যান ফরিদুল হক তালুকদার, তার ভাতিজা ওয়ার্ড মেম্বার ওমর সহ ৪জনকে আসামি করে মামলা হয়। ওমর মেম্বারকে পুলিশ গ্রেফতার করলে জেল হাজতে পাঠায় আদালত।

শেয়ার করুনঃ