শাস্তি হিসেবে বে’ত্রাঘাতের প্রথা বিলুপ্ত করতে যাচ্ছে সৌদি আরব। সংবাদমাধ্যমের কাছে আসা একটি আইনি নথির বরাত দিয়ে বিবিসি এ তথ্য জানিয়েছে।

সৌদি আরবের সর্বোচ্চ আদালতের ওই নির্দেশনায় বলা হয়েছে, বে’ত্রাঘা’তের পরিবর্তে কারাদণ্ড বা জরিমানার মতো শাস্তি দেওয়া হবে। সৌদি বাদশাহ সালমান ও যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের উদ্যোগে দেশটির মানবাধিকার পরিস্থিতি সংস্কারের অংশ হিসেবে এই পরিবর্তন আনা হচ্ছে বলে জানিয়েছে আদালত।

মানবাধিকার কর্মীদের মতে বিশ্বে সবচেয়ে খারাপ মানবাধিকার পরিস্থিতি যেসব দেশে, সৌদি আরব তার একটি। সেখানে সাধারণ মানুষের বাক স্বাধীনতা খুবই সীমিত এবং সরকারের সমালোচকদের ঢালাওভাবে গ্রেপ্তার করা হয়। রাজপরিবারের সমালোচনাকারী সাংবাদিক জামাল খাসোগিকে হত্যা তারই নজির।

২০১৫ সালে ব্লগার রাইফ বাদাউইকে সাইবার অপরাধ ও ইসলাম অবমাননার অভিযোগে ১০ বছরের জেল ও এক হাজার বে’ত্রাঘা’তের শা’স্তি দেওয়া হয়। কারাদণ্ড চলাকালে প্রতি সপ্তাহে ভাগে ভাগে এই বে’ত্রাঘা’তের দণ্ড কার্যকরের কথা ছিল। ২০১৫ সালের জানুয়ারিতে বাদাউইকে ৫০ বার বে’ত্রাঘা’ত করাও হয়। এই ঘটনা প্রকাশের পর সৌদি কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে বিশ্বব্যাপী নিন্দার ঝড় ওঠে। এর পরিপ্রেক্ষিতে বাদাউইর বে’ত্রাঘা’তের শাস্তি স্থগিত করা হয়।

শেয়ার করুনঃ