ফেঞ্চুগঞ্জ,প্রতিনিধি:: সরকারী নির্দেশনা অনুযায়ী দেশব্যাপী জনসমাগম রোধে সাধারণ ছুটিতে কর্মহীন হয়ে পড়েছে অসংখ্য সাধারণ মানুষ। এতে নিম্ন আয়ের মানুষগুলো পড়েছে বিপাকে। তবে এ সমস্যা লাঘবে দেশব্যাপী সরকারি ও বেসরকারিভাবে বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক, প্রশাসনিক সংগঠন ও ব্যক্তি উদ্যোগে নিম্ন আয়ের সাধারণ পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী ও সুরক্ষা সামগ্রী প্রদান করা হচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে ৩০ এপ্রিল সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার আওতাধীন
২নং মাইজগাঁও ইউনিয়ন ছাত্রলীগের উদ্যোগে ৬০ টি পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন নেতৃবৃন্দরা।

স্থানীয় সাংসদ মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী’র পক্ষ থেকে নভেল করোনা ভাইরাসের কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া শ্রমজীবী, হতদরিদ্র, অসহায় ও দুস্থ মানুষের বাড়ীতে খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিয়েছে ২নং মাইজগাঁও ইউনিয়ন ছাত্রলীগ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ২নং মাইজগাঁও ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি দেবব্রত পাল দ্বীপ, সাধারণ সম্পাদক – খালেদ আহমদ, সিনিয়র সহ সভাপতি শামীম আহমদ, সহ-সভাপতি মাহমুদুল হাসান চৌধুরী, আশরাফুল ইসলাম সৌরভ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মামুন মির্জা, সাংগঠনিক সম্পাদক জাবেদ আহমদ, হুসেন আহমদ অপু, শাহীন পাটোয়ারী, হাসান আহমদ প্রমুখ।

মাইজগাঁও ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি দেবব্রত পাল দ্বীপ জানান দেশের যেকোন ক্রান্তিলগ্নে ছাত্রলীগ মানুষের পাশে থাকে। তারই ধারাবাহিকতায় আমরা মাইজগাঁও ইউনিয়ন ছাত্রলীগ আমাদের দায়িত্বশীলতা ও দায়বদ্ধতাকে মাথায় রেখে মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা করেছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশেই ছাত্রলীগ এভাবেই গণমানুষের পাশে দাঁড়াবে এবং এ কার্যক্রম আগামীতেও অব্যাহত থাকবে বলে জানান।

তিনি আরো বলেন সিলেট ৩ আসনের সাংসদ মাহমুদ-উস-সামাদ চৌধুরী এমপি’র নির্দেশে এই খাদ্য সামগ্রী বিতরন করেছে মাইজগাঁও ইউনিয়ন ছাত্রলীগ

এ প্রসঙ্গে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এ. এম. ফারহান সাদিক বলেন, করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব এর পর থেকে এখন পর্যন্ত ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগ ও এর অন্তর্গত প্রত্যেকটি ইউনিট অসহায় মানুষের পাশে কাজ করে যাচ্ছে। সিলেট-৩ আসনের গণমানুষের নেতা- জননেতা মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী’র দিকনির্দেশনা অনুযায়ী প্রত্যেকটি ইউনিয়ন ছাত্রলীগ তাদের এই কাজ অব্যাহত রাখবে।

শেয়ার করুনঃ