গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধিঃ গোলাপগঞ্জের চন্দরপুরে প্রতিপক্ষের হামলায় গুরুত্বর আহত হয়েছেন মরহুম হাসির উদ্দিনের পুত্র শফিক উদ্দিন (৬৫)। শুক্রবার (০১ মে) সকাল ১১টায় প্রতিপক্ষের হামলায় তার মাথায় গুরুত্বর জখম হয়। এ ঘটনায় গোলাপগঞ্জ মডেল থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার সকাল ১১টায় শফিক উদ্দিনের গরুর সাথে প্রতিপক্ষের গরুর লড়াইকে কেন্দ্র করে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এসময় শফিক উদ্দিনের মাথায় গুরুত্বর জখম হয়।

অভিযোগের এজাহার সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার সকাল ১১টায় শফিক উদ্দিন তার একটি গরুকে ঘাস খাওয়ার জন্য বাড়ির পাশের মাঠে বেঁধে রেখে বাড়ির কাজে চলে আসেন। এসময় প্রতিপক্ষের মরহুম সিরাজ উদ্দিনের পুত্র কয়েছ মিয়া এসে গরুটি ছেড়ে দিয়ে তার নিজ গরুর সাথে লড়াই বেঁধে দেয়। পরে শফিক মিয়া দ্রুত এসে গরুর লড়াই বন্ধ করতে বলেন। তখন কিছু বুজে উঠার আগেই পূর্ব পরিকল্পিতভাবে প্রতিপক্ষের ৬ জন এসে হামলা চালায়।

অভিযোগের এজাহার সূত্রে আরও জানা যায়, হামলার সময় মৃত সিরাজ উদ্দিনের পুত্র জিতু মিয়া শফিক উদ্দিনের মাথায় ভুতা দা দিয়ে আঘাত করলে গভীর জখম হয়ে রক্তক্ষরণ শুরু হয়। এরপর মৃত বশির উদ্দিনের পুত্র ফিজু মিয়া সুলফি দিয়ে আঘাত করলে তা প্রতিরোধ করার চেষ্টায় শফিক উদ্দিনের হাতের বৃদ্ধাঙ্গুলিতে জখম হয়। এরপর মৃত সিরাজ উদ্দিনের পুত্র লেইছ মিয়া ও কয়েছ মিয়া এবং মৃত বশির উদ্দিনের পুত্র আলী হোসেন ও বারিক মিয়া এসে উপর্যুপরি হামলা চালায়। এতে শফিক উদ্দিন মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। এছাড়াও তারা শফিক উদ্দিনের গরুকে শাবল ও সুলফি দিয়ে জখম করে। এসময় শফিক উদ্দিনের প্রতিবন্ধী দুই পুত্রের আহাজারিতেও তারা থামেনি। পরে চিৎকার-চেঁচামেচিতে পরিবার ও স্তানীয় লোকজন এসে শফিক উদ্দিনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে গোলাপগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।

এসময় তারা থানায় মামলা করলে শফিক উদ্দিনকে প্রাণে মারারও হুমকি দেয় বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।

এদিকে অভিযোগের আলোকে গোলাপগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে এবং তদন্তানুসারে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানানো হয়েছে।

শেয়ার করুনঃ