করোনা আক্রান্ত সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ২০ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করেছেন সাবেক ছাত্রনেতা ও যুক্তরাজ্যের মিডল্যান্ডস আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম বেলাল।

এক প্রেস বার্তায় তিনি সিলেটের সাবেক নন্দিত ছাত্রনেতা ও যুবনেতা, সিলেটের তারকা ক্রীড়াবিদ ও দক্ষ ক্রীড়া সংগঠক,সিলেট মহানগর আওয়ামীলীগের সাবেক শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক, এবং সিসিকের ২০নং ওয়ার্ডের টানা চতুর্থ বারের নির্বাচিত কাউন্সিলর,বর্তমান সিলেটের জননন্দিত জননেতা আজাদুর রহমান আজাদের শরীরে গত ২৪মে (রবিবার) করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে।এর আগে শরীরে জ্বর অনুভব করায় তিনি ওসমানী মেডিকেল কলেজের ল্যাবে নমুনা প্রদান করেন।রবিবার ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় তিনি করোনাক্রান্ত বলে সনাক্ত হন।

প্রসঙ্গত, করোনা মহামারিকালে ব্যাপক খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন সিসিকের বারবার নির্বাচিত এ কাউন্সিলর। করোনার শুরু থেকেই খাদ্য সামগ্রী নিয়ে মানুষের দরজায় ছুটে গেছেন তিনি। নিজের স্ত্রী যুক্তরাজ্যের ওয়েস্টহ্যাম্পস্টেডর কেমডেন কাউন্সিলর নাজমা রহমানকে সাথে নিয়েই মানবিক এ তৎপরতা চালিয়ে গেছেন আজাদ। তারা উভয়েই রাতের আঁধারে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিয়ে খেটে খাওয়া মানুষের মুখে হাসি ফুটানোর সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে গেছেন। করোনা আক্রান্ত হওয়ার আগের দিন পর্যন্ত গরু জবাই করে দুস্থ মানুষদের মাঝে বিতরণ করেছেন তিনি।

এছাড়া করোনা সংকটে সিলেটে রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির ব্লাড ব্যাংকে দেখা দিয়েছিল রক্ত সংকট। এমন পরিস্থিতিতে কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদ স্বেচ্ছায় রক্তদানের উদ্যোগ গ্রহন করেন। গত ১৮ এপ্রিল তিনি স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন। তার এ রক্তদান কর্মসূচীতে এলাকার যুবক ও দলীয় নেতাকর্মীরা স্বেচ্ছায় রক্তদান করেন। এবং ঐদিনই ২১জনকে সাথে করে নিয়ে এসে রক্তদান করেন আজাদুর রহমান আজাদ। তাছাড়া করোনা বিপর্যয়ের মধ্যে সিলেটে করোনা রোগী-সহ সকল ধরণের রোগী যেন সু-চিকিৎসা পান তা নিশ্চিতকরণেও ব্যাপক কাজ করেছেন তিনি। তার এমন মানবিক তৎপরতা বেশ প্রসংশা কুড়িয়েছে সর্বমহলে।

এদিকে করোনার শুরু থেকেই মানবিক এ তৎপরতা চালাতে গিয়ে ব্যাপক মানুষের সংস্পর্শে গিয়েছেন তিনি। আর এতে করেই যে কারও মাধ্যমে তিনি করোনাক্রান্ত হয়ে পড়েন বলে মনে করা হচ্ছে।

তাছাড়াও কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদের অসুস্থতার খবরে বহির্বিশ্বে আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ-সহ সহযোগী সংগঠনের সকল নেতাকর্মী অনেক কষ্ট পেয়েছেন এবং মর্মাহত হয়েছেন। তারা সকলেই সিলেটের জননন্দিত এ জননেতার আশু সুস্থতা কামনা করেছেন।

মহান রাববুল আল আমিনের কৃপায় কাউন্সিলর আজাদুর রহমান যেন দ্রুত সুস্থ হয়ে পুনরায় দুস্থ ও অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে পারেন তিনি সেই কামনাই করেন।

শেয়ার করুনঃ