দাউদপুর ইউনিয়ন প্রবাসী ট্রাষ্ট এর সভাপতি আবুল হোসেন এর উপর কথিত ষড়যন্ত্রমূলক মামলার প্রতিবাদে দাউদপুর ইউনিয়ন প্রবাসী ট্রাষ্ট এর উদ্যোগে গত ২৮ মে রবিবার ইংল্যান্ড সময় দুপুর ১২ টায় কার্যকরী পরিষদের এক জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ট্রাষ্টে’র সিনিয়র সহ সভাপতি আনা মিয়া’র সভাপতিত্বে ও তৌহিদুর রাহমান রুমান এর পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে অংশগ্রহণ করেন ট্রাষ্টি মোহাম্মদ মানিক, ট্রাষ্টি তাজ উদ্দিন, ট্রাষ্টি ফলিক আহমেদ, ট্রাষ্টি আলীম উদ্দিন, ট্রাষ্টি আব্দুল হক সাজু, ট্রাষ্টি আব্দুল আলীম, ট্রাষ্টি সুমন আহমদ ও ট্রাষ্টি সোহেল আহমেদ সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, আবুল হোসেন একজন স্বজ্জন ও সমাজ সচেতন ব্যক্তিহিসেবে দীর্ঘদিন থেকে দাউদপুর ইউনিয়ন সহ সিলেটের বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সাথে জড়িত । তিনির পিতা ও দাদা উভয়েই দীর্ঘদিন দাউদপুর ইউনিয়ন এর ষড়পঞ্চ ছিলেন।

প্রবাসী আবুল হোসেনকে গ্রেফতারের পর একটি মহল দাউদপুর ইউনিয়ন প্রবাসী ট্রাষ্ট এর জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে ফেইসবুকে বিভিন্ন নামে বেনামে আইডি থেকে অপপ্রচার চালাচ্ছে। যা সর্ম্পুন্ন উদ্দেশ্য প্রনোদিত। কুচক্রিমহল মিথ্যা ইস্যুকে কেন্দ্র করে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। মামলায় বাদীর অসামঞ্জস্যপূর্ণ বক্তব্য, অতি উৎসাহি নামহীন ভুঁইফোঁড় অনলাইন নিউজ পোর্টাল এর নিউজ, নবিগঞ্জ থানার ওসির মামলায় অতি উৎসাহ দেখানো ও গ্রেফতার সব বিষয় মিলিয়ে এ মামলার পেছনে একটি মহলের ইন্ধন রয়েছে বলে নেতৃবৃন্দ মনে করেন। সভায় নেতৃবৃন্দ আবুল হোসেন এর উপর দায়েরকৃত মামলা সুষ্ট তদন্ত সহ তার মুক্তি’র দাবী জানান।

সভায় অংশগ্রহণকারী নেতৃবৃন্দ এই পরিস্থিতিতে উদ্বেগ প্রকাশ করেন এবং সচেতন ইউনিয়নবাসীকে এ ক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালনের জন্য আহবান জানান।

শেয়ার করুনঃ