বুধবারীবাজার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মস্তাব উদ্দিন কামালের দেহে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। সোমবার নতুন করে উপজেলার যে ৪ জনের দেহে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া যায় তার মধ্যে মস্তাব উদ্দিন কামালের রিপোর্টও ছিলো।।

অন্যান্যরা হলেন ঢাকাক্ষিণ ইউনিয়নের সুনামপুুুর গ্রামের ৪৭ বছরের একজন পুরুষ, উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ৪০বছরের একজন স্বাস্থ্যকর্মী, ঔষধ কোম্পানির ২৯ বছরের ১জন।

সোমবার (৮ জুন) রাতে এ তথ্য জানিয়েছেন গোলাপগঞ্জ উপজেলা স্বা’স্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মনিসর চৌধুরী।

তিনি জানান, সোমবার রাতে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় গোলাপগঞ্জের এ ৪ জনের রিপোর্ট পজেটিভ আসে।

এদিকে গোলাপগঞ্জ উপজেলায় মোট করোনা রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬১ জনে। এরমধ্যে ১৮ জন সুস্থ হয়েছেন এবং মারা গেছেন ১জন।

শেয়ার করুনঃ