বিশেষ এক কাজে তাদের নোয়াখালী ও কিশোরগঞ্জে পাঠানো হয়। পৃথিবীতে এসেই একজন ডায়াবেটিকস বাঁধিয়ে ফেলে। এরপর তারা আশ্রয় নেয় জঙ্গলে। এক নারীর উপর ভর করে হুলুস্থুল বাধিয়ে দেয় এলাকায়। চার দৈত্যের এমনই গল্প নিয়ে নির্মিত হচ্ছে সাত পর্বের ধারাবাহিক নাটক।

এটি রচনা ও পরিচালনা করেছেন আদিবাসী মিজান। এতে তিন দৈত্যের ভূমিকায় অভিনয় করছেন ফারুক হোসেন, বড়দা মিঠু ও জামিল হোসেন। তাদের নেতা প্রদীপ কুমার চরিত্রে অভিনয় করছেন আনিসুর রহমান মিলন।

আদিবাসী মিজান জানান, মূলত চার চতুর লোকের গল্প এটি। যারা দৈত্য সেজে মানুষ ঠকায়। এতে গ্রামের মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছেন ঊর্মিলা শ্রাবন্তী কর। চেয়ারম্যান চরিত্রে অভিনয় করছেন মাজনুন মিজান।

নাটকটির গল্পে দেখা যাবে, দৈত্যরা যেখানে তিনটি ইচ্ছে পূরণ করতে চায়, সেখানে একটি ইচ্ছে পূরণের অফার দেই এই দৈত্যরা। কারণ তাদের বাজেট কম। আর এতেই গ্রামের মানুষেরা ভিড় করতে থাকে তাদের কাছে। কেউ চেয়ারম্যান, কেউ এমপি চায়। এই সুযোগে তারা মানুষকে ঠকায়।

নির্মাতা সূত্রে জানা গেছে, ক্রাউন এন্টারটেইনমেন্টের ব্যানারে নাটকটি তৈরি হয়েছে। ঈদুল আযহায় নাটকটি একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে প্রচার হবে।

শেয়ার করুনঃ