শাহজাহান কবির খান,(জৈন্তাপুর),সিলেট: জৈন্তাপুর উপজেলার চিকনাগুল ইউনিয়নে বিনা উদ্বাবিত উচ্চ ফলনশীল স্বল্পকালীন আউস জাত বিনাধান-১৯ এর প্রচার ও সম্প্রসারণ বিষয়ে স্থানীয় কৃষকদের সমন্বয় এক মাঠ দিবস পালিত হয়েছে। গত ১৩ আগস্ট বৃহস্পতিবার বিকেলে সাড়ে ৩টায় স্থানীয় ইউনিয়ন অফিস সংলগ্ন মাঠে কৃষকদের এই মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়।

হাওর চর কর্মসূচি‘র অর্থায়নে ও বাংলাদেশ পরমানু কৃষি গবেষনা ইনস্টিটিউট (বিনা) এবং জৈন্তাপুর উপজেলা কৃষি অফিস এই মাঠ দিবস আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা কৃষি অফিসার ফারুক হোসাইন।

এতে সভাপতিত্ব করেন বিনা উপকেন্দ্র সুনামগঞ্জের উর্ধ্বতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো: হাসানুজ্জামান রনি।

বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার সুব্রত দেবনাথ, বৈজ্ঞানিক র্কমকর্তা ফরহাদ হোসেন, মো: মাহবুবুর রহমান, মো: তাজুল ইসলাম, জৈন্তাপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নূরুল ইসলাম , প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক শাহজাহান কবির খান।

সভায় বক্তারা বলেন, সরকারের দেশের খাদ্য চাহিদা পুরনে কৃষকদের নানা ভাবে সহযোগিতা করে আসছে। ধানের নতুন জাত উদ্বাবন করতে আমাদের কৃষি বিজ্ঞানীগণ নিরলস ভাবে গবেষনা চালিয়ে যাচ্ছেন। বিনা উদ্বাবিত উচ্চ ফলনশীল স্বল্পকালীন আউস জাত বিনাধান-১৯ গবেষনার একটি নতুন ফসল। মাত্র তিন মাস সময়ের মধ্যে চারা থেকে ধান উৎপাদন করা সম্ভব। নতুন এই জাতের ধান চাষে জৈন্তাপুর উপজেলার কৃষকদের এগিয়ে আসার আহবান জানান।

চিকনাগুল ইউনিয়নের উপ-সহকারী কৃষি অফিসার ভানু চন্দ্র নাথের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন কৃষক সুলেমান আহমদ ও সামছুল ইসলাম।

শেয়ার করুনঃ