শাহজাহান কবির খান জৈন্তাপুর (সিলেট) থেকেঃ সিলেটের জৈন্তাপুরে আধিবাসী সম্প্রদায়ের একটি নতুন সৃজিত সুপারী বাগানের প্রায় ২ শতাধিক গাছ কর্তন করেছে দূর্বৃত্তরা। এনিয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করবেন বলে জানিয়েছে বাগান মালিক।

সরেজমিন ঘুরে দেখা য়ায়, জৈন্তাপুর উপজেলার নিজপাট ইউনিয়নের ভিতরগোল গুয়াবাড়ী এলাকায় দীর্ঘদিন হতে আধিবাসী সম্প্রদায়ের স্বর্গীয় মলয় লতুব নিজ উদ্যোগে গড়ে তুলেন পান সুপারীর বাগান। গত ২ বৎসর পূর্বে তিনি মৃত্যুবরণ করলে উত্তরাধীকারী সূত্রে তার ছেলে ফাইসাল খংলা বাগানের পরিচর্যা ও পরিচালনা করে আসছেন। সম্প্রতি বাগান সম্প্রসারনের লক্ষ্যে ফাইসাল খংলা (২৮) নতুন জায়গায় বাগান সৃজন করে প্রায় ৫ শতাধিক সুপারী চারা রোপন করেন।

বৃহস্পতিবার (২০ আগস্ট) দিবাগত রাতে দূর্বৃত্তচক্র সৃজিত সুপারী বাগানের প্রায় ২ শতাধিক চারা কর্তন করে।

বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় গ্রামবাসীরা জানান শান্তিপ্রিয় আধিবাসী সম্প্রদায়ের লোক ফাইসাল খংলা। কারো সাথে ফাইসাল খংলার কোন বিরুধ নেই। সুপারী বাগান কর্তনের কারনে তারাও মর্মাহত। তারা আরও বলেন একশ্রোনীর ভূমি খেকু চক্র দীর্ঘ দিন হতে মলয় বাবুর ভুমি দখলের অপচেষ্টা করে যাচ্ছে। তিনি জীবিত থাকাবস্থায় ২০১৬ সনে একই কায়দায় প্রায় ৫ শতাধিক পানের গাছ কেটে ফেলে চক্রটি। তাদের ধারনা নিরিহ প্রকৃতির আধিবাসী সম্প্রদায়ের ভূমি দখলে নিতে এবং উচ্ছেদ করতে সুপারী চারা কর্তনের মাধ্যমে তারা ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে বলে ধারনা করছেন।

এ বিষয়ে স্বর্গীয় মলয় লতুবের ছেলে ফাইসাল খংলা এ প্রতিবেদককে জানান, আমি নতুন করে এই বাগানটি সৃজন করছি, কিন্তু একটি চক্র রাতের আধাঁরে আমার সৃজিত বাগান ধ্বংস করে দিয়েছে। আমি আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য থানায় লিখিত অভিযোগ করবো।

এ বিষয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মহসিন আলী এ প্রতিবেদককে জানান, এ ব্যাপারে তিনি কিছুই জানেন না বা তাকে কেউ জানায়নি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানান তিনি।

শেয়ার করুনঃ