সিলেটের গোলাপগঞ্জে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়েরকৃত মামলায় ৪জন আসামীকে কারাগারে প্রেরণ করেছে আদালত। সোমবার দুপুরে সিলেট জেলা দায়রা জজ আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করলে মহামান্য আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

জেল হাজতে প্রেরণকৃত আসামীরা হলেন, উপজেলার আমুড়া ইউনিয়নের আমনি পশ্চিম গ্রামের আজ্জাদ আলীর পুত্র তাহির আলী (৩০), একই ইউনিয়নের সুন্দিশাইল গ্রামের নুনু মিয়ার পুত্র তোহের আহমদ শিমু (৪৩), বাবুল মিয়ার পুত্র এ. চৌধুরি মুহি (২৪), মৃত আব্বুস সালামের পুত্র মিন্টু লস্কর (৪৫)।

এর আগে এই মামলার ২নং আসামী আমুড়া ইউনিয়নের সুন্দিশাইল লম্বা টিল্লা গ্রামের নুনু মিয়ার পুত্র টি এ চৌধুরী দিপু (৩১) কে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে সে প্রায় দেড়মাস পর আদালত থেকে জামিনে মুক্তি পায়। বর্তমানে সে জামিনে রয়েছে।

জানা যায়, গত ১১ ফেব্রুয়ারী একই গ্রামের ইউপি সদস্য, আমুড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক কামরান হোসেন বাদী হয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সিলেট সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদলতে একটি মামলা (গোলাপগঞ্জ সি আর মামলা নং-৫৪/২০২০) দায়ের করেন। মামলায় ৫জনকে আসামী করা হয়।

মামলার বাদী আমুড়া ইউপি সদস্য ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক কামরান হোসেন জানান, এজহারভুক্ত এই ৫ আসামী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে আমায় হেয় প্রতিপন্ন করতে বিভিন্নভাবে অশ্লীল ভিডিও ও ছবি প্রচার করে আসছিল। তারা এলাকায় ফেইসবুকে ফেইক আইডি ব্যবহার করে বিভিন্ন জনের বিরুদ্ধে অপপ্রচার করে তাকে। এমনকি অনেকের কাছে চাঁদা দাবি করে বলেও জানান তিনি।

এ ব্যাপারে বাদী পক্ষের আইনজীবী এডভোকেট মোঃ ইকবাল হক চৌধুরীর সাথে যোগাযোগ করা হলে এ চার আসামীকে কারাগারে প্রেরণের বিষয়টি তিনি নিশ্চিত করেন।

শেয়ার করুনঃ