বিশিষ্ট ইসলামি চিন্তাবিদ হাফেজ মাওলানা জিয়াউল হক বলেছেন, আলোকিত ও সুন্দর সমাজ বিনির্মাণে ইসলামী আদর্শ বাস্তবায়নের বিকল্প নেই। সর্বোত্তম আদর্শের অধিকারী হতে হলে সুন্দর ব্যবহার করতে হবে। অমায়িক ব্যবহার মুমিন জীবনের প্রধান চাওয়া। শান্তির ধর্ম ইসলাম মানুষের প্রতি মানুষের ভালবাসা বাড়িয়ে দিয়েছে। আলোকিত ও সুন্দর সমাজ বিনির্মাণে ইসলামী আদর্শ বাস্তবায়নের বিকল্প নেই। এজন্য ব্যক্তি জীবনকে ইসলামের আলোয় আলোকিত করে তুলতে হবে।

তিনি ২৩ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার রাতে দক্ষিণ সুরমার লালাবাজার ইউনিয়নের উত্তর ফরিদপুর বায়তুল মামুর জামে মসজিদ কমিটির উদ্যোগে মসজিদ সংলগ্ন মাঠে আয়োজিত তাফসীরুল কুরআন মাহফিলে প্রধান বক্তার বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

উত্তর ফরিদপুর বায়তুল মামুর জামে মসজিদ এর মুতাওয়াল্লী আজমল হোসেন খান উনু মিয়ার সভাপতিত্বে মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন হাজী কুদরত উল্লাহ জামে মসজিদের ইমাম ও খতিব মাওলানা সাঈদ বিন নুরুজ্জামান আল মাদানী ।

বিশেষ অতিথি হিসেবে মাহফিলে বয়ান পেশ করেন বিশ্বনাথ আলিয়া মাদরাসার আরবি প্রভাষক মাওলানা মুফতি নাজিম উদ্দিন, লালাবাজার আলিম মাদরাসার আরবি প্রভাষক মাওলানা আব্দুল আহাদ, বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ মাওলানা আব্দুল হাই বাহুবলী, ইলাশপুর মোহাম্মদিয়া দাখিল মাদরাসার সুপার মাওলানা নুরুল হুদা শামীম, ভালকী শাহী জামে মসজিদের ইমাম ও খতিব মাওলানা আবু আইয়ুব আনসারী, ফরিদপুর জামে মসজিদের ইমাম ও খতিব মাওলানা শফিকুর রহমান।

উত্তর ফরিদপুর বায়তুল মামুর জামে মসজিদের খতিব মাওলানা দেলওয়ার হোসেন হীরা ও হাফিজ আকমল হোসেনের যৌথ পরিচালনায় মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন ৬নং লালাবাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পীর ফয়জুল হক ইকবাল, সাবেক চেয়ারম্যান খায়রুল আফিয়ান চৌধুরী, বিশিষ্ট মুরব্বী সোনাহর আলী, নিজাম উদ্দিন, মাষ্টার শাহিদুর রহমান, সাবেক ইউপি সদস্য শহিদুর রহমান শহীদ, সমাজসেবী ফয়ছল আহমদ প্রমুখ।

শেয়ার করুনঃ