Previous
Next

সর্বশেষ

Saturday, 28 January 2023

সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ১-এর বার্ষিক বনভোজন সম্পন্ন

সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ১-এর বার্ষিক বনভোজন সম্পন্ন


সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ১-এর বার্ষিক বনভোজন ২০২৩ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার সমিতির আওতাধীন ৮টি উপজেলার কর্মকর্তা কর্মচারী ও তাদের পরিবারের সদস্যদের অংশ গ্রহনে গোলাপগঞ্জের ড্রীমল্যান্ড পার্কে সারা দিন নানা কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে বনভোজন সম্পন্ন হয়। বনভোজনে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, খেলাধুলা ও লটারী ড্র, পুরস্কার বিতরনের মত আয়োজন ছিল। 

এতে উপস্থিত ছিলেন সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ১-এর সভাপতি সাংবাদিক আব্দুল আহাদ, সমিতির জেনারেল ম্যানেজার মোহাম্মদ আক্তারুজ্জামান লস্কর,সমিতির সচিব মোহাম্মদ আব্দুল হাই নন্না,পরিচালক মাহবুব আহমদ,সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ২এর জেনারেল ম্যানেজার সঞ্জিব কুমার রায়,সুনামগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জেনারেল ম্যানেজার সুজিত কুমার দাশ প্রমুখ। 

Sunday, 22 January 2023

মার্চ থেকেই সরকারি হাসপাতালে চেম্বার করবেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা

মার্চ থেকেই সরকারি হাসপাতালে চেম্বার করবেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা


এবছরের মার্চ মাসের ১ তারিখ থেকে সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসকরা নির্দিষ্ট অফিস সময়ের বাইরের সময়ে আলাদাভাবে প্রস্তুতকৃত সরকারি হাসপাতালেই চেম্বারের মাধ্যমে রোগী দেখবেন। 

চিকিৎসকদের ডিউটি সময়ের বাইরে বিভিন্ন ক্লিনিক বা ফার্মেসিতে যেভাবে চেম্বার খুলে রোগী দেখতে হতো, সরকারি এই বিশেষ সুবিধার ফলে নিজ নিজ সরকারি কর্মস্থলেই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকগণ চেম্বারে রোগী দেখতে পারবেন। 

এ বিষয়ে চিকিৎসক নেতৃবৃন্দসহ সংশ্লিষ্ট সব মহলের মতামত নিয়েছে সরকার। এই কাজটি শুরু করতে দ্রুতই একটি উচ্চ পর্যায়ের কমিটি গঠন করে দেওয়া হচ্ছে। 

রোববার স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, দেশের মানুষের জন্য অত্যন্ত জনকল্যাণকর এই মহানুভব কাজের শুরুটি হবে মহান স্বাধীনতা মার্চ মাসের শুরু থেকেই। এই কাজটি শুরু হলে দেশের লাখ লাখ মানুষ বিভিন্ন ক্লিনিক, ফার্মেসিতে ডাক্তার দেখানোর ভোগান্তি থেকে রেহাই পাবেন। 

রোববার দুপুরে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সাথে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন চিকিৎসক পেশাজীবী সংগঠনসহ, মন্ত্রণালয়ের ঊর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে ‘ইনস্টিটিউশনাল প্রাকটিস বিষয়ক একটি জরুরি সভায়’ সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

সভায় দুইদিন আগে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে সারা ইসলাম নামে একজন মৃত্যু পথযাত্রী নারী রোগীর মরোনোত্তর অঙ্গ দানের মত মহানুভব বিষয়টি তুলে ধরেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। 

এ প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, সারা ইসলাম নামে একজন অল্পবয়সী নারীর মৃত্যুর আগে দান করে যাওয়া অঙ্গ থেকে ৪ জন মানুষের বেঁচে থাকাটা আরো সুন্দর হয়েছে। সারা ইসলামের দান করা কিডনী, কর্নিয়ার মাধ্যমে শামীমা (৪০) এবং হাসিনা (৩৪) নামের দুজন মহিলা কিডনি পেয়েছেন এবং ফেরদৌস (৫৬) ও সুজন (২৪) নামে দুজন পুরুষ তার চোখ পেয়েছেন। এই সুন্দর কাজটি হয়েছে আমাদের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা কেন্দ্র থেকে। 

সভায় উপস্থিত ছিলেন-বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন (বিএমএ)-এর সভাপতি ডা. মোস্তাফা জালাল মহিউদ্দিন, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব ড. মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার, স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সচিব মো. সাইফুল হাসান বাদল,  স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এ বি এম খুরশীদ আলম, স্বাচিপ সভাপতি অধ্যাপক ডা. জামাল উদ্দিন চৌধুরী, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. শারফুদ্দিন আহমেদ, সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. এএইচএম এনায়েত হোসেন, বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ও নিউরো হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. কাজী দ্বীন মোহাম্মদ, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালকসহ অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা । 
গোলাপগঞ্জে দেওয়ানের পুল নিয়ে এলজিইডির গণশুনানী অনুষ্ঠিত

গোলাপগঞ্জে দেওয়ানের পুল নিয়ে এলজিইডির গণশুনানী অনুষ্ঠিত



গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধিঃ গোলাপগঞ্জে দেওয়ানের পুল ভাঙ্গা ও না ভাঙ্গা প্রসঙ্গ নিয়ে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের উদ্যোগে গনশুনানী অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার বেলা ১১ টায় ব্রীজ সংলগ্নমাঠে তিন ইউনিয়নের ব্যাপক সংখ্যক মানুষের সামনে এ গণশুনানী অনুষ্ঠিত হলে লিখিতভাবে অনেকেই তাদের মতামত পেশ করেন।

উল্লেখ্য যে, দেওয়ানের সড়ক সংস্কার ও প্রসস্থ করনের কাজ শুরু হলে শত বছরের প্রাচীনতমদেওয়ানের ব্রীজটিও ভেঙ্গে নতুন ব্রীজ নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়। এ বিষয়ে বিভিন্ন প্রিন্ট, ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া ও সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমে পক্ষে বিপক্ষে প্রচার প্রচারনা চলতে থাকলে ব্রীজ ভাঙ্গার কাজ স্থগিত রাখতে সরকারি ভাবে নির্দেশনা জারী করা হয়। এতে শুধু ব্রীজ নয়, রাস্তা নির্মাণের কাজও স্থগিত হয়ে যায়।

গোলাপগঞ্জ উপজেলার অতি গুরুত্বপূর্ণএকটি স্থল যোগযোগ মাধ্যম হচ্ছে হেতিমগঞ্জ টু ঢাকা দক্ষিণ দেওয়ান সড়ক। গোলাপগঞ্জ উপজেলা সদর ব্যবহার না করে ঢাকা দক্ষিণ, ভাদেশ্বর সহ পূর্ব সিলেটে যাতায়াতে এ রাস্তাটি অনেকটা সহজ মাধ্যম। সাম্প্রতিক সময়ে এ রাস্তাটি প্রশস্থকরণ, মেরামত ও উন্নয়নের জন্য প্রায় ৩০ কোটি টাকার একটি প্রকল্প সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ হাতে নিয়েছে। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের ব্যবস্থাপনায় কাজ শুরু হলে মধ্য পথে প্রাচীন কালের স্থপনা দেওয়ান ব্রীজটিও ভাঙ্গার কবলে পড়ে। ৩ কোটি ৮২ লক্ষ টাকা বরাদ্দের এ ব্রীজটির ভাঙ্গার কাজ প্রায় ৪০ ভাগ সম্পন্ন হলে তা বন্ধের লক্ষ্যে বিভিন্ন মহলের পক্ষ থেকে দাবী ওঠে। মিডিয়া ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তা প্রচারিত হতে থাকলে এক পর্যায়ে সরকারী নির্দেশনায় ব্রীজ ভাঙ্গা ও নতুন ব্রীজ তৈরী ইত্যাদি কার্যক্রম সাময়িক স্থগিত করা হয়।

এ দিকে স্থানীয় জনগণ ব্রীজটি ঝুকিপূর্ণ আখ্যা দিয়ে তা ভেঙ্গে নতুন করে নির্মাণের জন্য দাবী উত্থাপন করে মানববন্ধন
সহ নানা কর্মসূচী পালন করতে থাকেন। ফলে দেওয়ান ব্রীজ ভাঙ্গা ও নির্মাণ সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে জটিলতার সৃষ্টি হয়। 

এব্যাপারে রোববার স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের উদ্যোগে এক গণ শুনানীর আয়োজন করা হয়। এতে সুবিধাভোগী স্থানীয় লক্ষ্মীপাশা, ঢাকা দক্ষিণ ও ফুলবাড়ী ইউনিয়নের ব্যাপক সংখ্যক মানুষ উপস্থিত ছিলেন। 

এসময় লক্ষ্মীপাশা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাহতাব উদ্দিন জেবুলের সভাপতিত্বে, ইউপি সদস্য এম এ আহাদ ও এনামুল হক আবুলের পরিচালনায় গণ শুনানী অনুষ্ঠানের আলোচনায় বিশিষ্ট ব্যক্তিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন গোলাপগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মঞ্জুর কাদির শাফি চৌধুরী এলিম, ভাইস চেয়ারম্যান নাজিরা বেগম শিলা, জেলা আওয়ামীলীগ নেতা সৈয়দ মিছবাহ উদ্দিন, সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর সভাপতি সাংবাদিক আব্দুল আহাদ, ফুলবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হানিফ, ঢাকা দক্ষিণ ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান ইউপি সদস্য সেলিম আহমদ, ফুলবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সেক্রেটারী নুরুল আলম, শ্রীবহরের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব মজনু মিয়া প্রমুখ।

এছাড়াও আশপাশের ৩টি ইউনিয়নের ব্যাপক সংখ্যক লোক তাতে অংশ গ্রহণ করে তাদের অভিমত প্রকাশ করেন। উপস্থিত লোকজন ও বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ জনস্বার্থে ব্রীজটি ভেঙ্গে নতুন করে নির্মাণের পক্ষে মত পোষণ করতে দেখা যায়। এসময় স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের প্রতিনিধিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এলজিইডির সিলেটের নির্বাহী প্রকৌশলী ইনামুল কবির, গোলাপগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলী মাহমুদুল হাসান।  

Wednesday, 18 January 2023

যুবলীগ নেতা খাইরুল ইসলামের যুক্তরাজ্য গমন উপলক্ষে বিদায়ী সংবর্ধনা প্রদান

যুবলীগ নেতা খাইরুল ইসলামের যুক্তরাজ্য গমন উপলক্ষে বিদায়ী সংবর্ধনা প্রদান


বুধবারীবাজার ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি, গোলাপগঞ্জ উপজেলা যুবলীগ নেতা খাইরুল ইসলামের যুক্তরাজ্য গমন উপলক্ষে চন্দরপুর যুবসমাজের পক্ষ থেকে বিদায়ী সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে। এসময় চন্দরপুর ওয়ার্ড ছাত্রলীগ-যুবলীগ ও আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকেও বিদায়ী সম্মাননা স্মারক তুলে দেয়া হয়।

মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারী) রাতে প্রাণবন্ত আয়োজনের মধ্য দিয়ে সাবেক এ ছাত্রলীগ নেতাকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।

এসময় যুক্তরাজ্য প্রবাসী কফিল উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও ইউপি সদস্য সালমান কাদের দিপুর পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন লন্ডন মহানগর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আরিফুল ইসলাম।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন লন্ডন মহানগর যুবলীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক হোসাইন আহমদ, গোলাপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য সেলিম উদ্দিন, বুধবারীবাজার ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আফজল হোসেন, গোলাপগঞ্জ উপজেলা তাঁতী লীগের সহ-সভাপতি আলী হোসেন, সমাজকর্মী বাহার উদ্দিন, সাইফুল হক, ফয়সল মাহমুদ, সাইদুল ইসলাম লাল, জুনেদ আহমদ, আলী হোসেন রাদিস প্রমুখ।

এসময় বক্তারা খাইরুল ইসলামের সাংগঠনিক কার্যক্রম তুলে ধরে তার ভূয়সী প্রশংসা করেন। সমাজকর্ম থেকে রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে তার অবদান তুলে ধরে নতুন প্রজন্মকে তার রেখে যাওয়া পথ অনুসরণ করবে বলে বক্তাগণ প্রত্যাশা রাখেন। এসময় উপস্থিত সকলেই খাইরুল ইসলামের প্রবাস জীবনের মঙ্গল কামনা করেন।
 
অনুষ্ঠানে আরোও উপস্থিত ছিলেন- সমাজকর্মী সালেহ আহমদ, তারেক আহমদ, সুহেল আহমদ, কাওছার আহমদ, বাহার আহমদ, ছাত্রলীগ নেতা শিপলু আহমদ, পাপ্পু আহমদ, হোসাইন সারোয়ার, সায়েক রহমান, সুজেল আহমদ, রাহী, রেদওয়ান, লাভলু, মুহিব সুন্নাহ-সহ চন্দরপুর যুব সমাজের সকল সদস্যবৃন্দ এবং চন্দরপুর ওয়ার্ড ছাত্রলীগ-যুবলীগ ও আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ।
‘উন্নয়নের জোয়ারে ভাসছে পার্বত্য অঞ্চল’

‘উন্নয়নের জোয়ারে ভাসছে পার্বত্য অঞ্চল’


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পার্বত্য অঞ্চলকে উন্নয়নের জোয়ারে ভাসিয়ে দিয়েছেন উল্লেখ করে পার্বত্য চট্টগ্রামবিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বলেছেন, পার্বত্য অঞ্চল এখন আর পিছিয়ে পড়া জনপদ নয়। পার্বত্য অঞ্চল এখন দেশের সম্পদ। সমতলের মতোই পার্বত্য চট্টগ্রামের মানুষ এখন দেশের উন্নয়নে সমানভাবে ভূমিকা রাখছে। 

মঙ্গলবার বাংলাদেশ সচিবালয়ে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এডিপি বাস্তবায়ন অগ্রগতি পর্যালোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপি এসব কথা বলেন।

সভার সভাপতিত্ব করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব হামিদা বেগম।

সম্প্রতি সফলভাবে সম্পন্ন হওয়া পার্বত্য মেলা প্রসঙ্গে মন্ত্রী বীর বাহাদুর বলেন, মন্ত্রণালয়ের সচিব, অতিরিক্ত সচিব, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড, পার্বত্য তিন জেলা পরিষদ ও অন্যান্য সহযোগী প্রতিষ্ঠান অত্যন্ত সুন্দর, সফল ও আকর্ষণীয়ভাবে মেলার কাজ সম্পন্ন করেছেন। এ জন্য তিনি সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। 

সংশ্লিষ্টদের উদ্দেশ্য করে মন্ত্রী আরও বলেন, আমাদের চলমান প্রকল্পগুলো যথাযথভাবে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে সম্পন্ন করতে হবে। প্রধানমন্ত্রীকে যেন বলতে পারি, আমাদের যে দায়িত্ব দিয়েছেন, তা আপনার দিকনির্দেশনায় সঠিকভাবে সম্পন্ন করেছি।

এ সময় পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব সত্যেন্দ্র কুমার সরকার, অতিরিক্ত সচিব মো. আমিনুল ইসলাম, রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মংসুইপ্রু চৌধুরী, পার্বত্য চট্টগ্রামের প্রত্যন্ত এলাকায় সোলার প্যানেল স্থাপন প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মোহাম্মদ হারুন-অর-রশীদ উপস্থিত ছিলেন। 
বিরোধীরা ছানি অপারেশন করালে দেশের উন্নয়ন দেখতে পাবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

বিরোধীরা ছানি অপারেশন করালে দেশের উন্নয়ন দেখতে পাবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী


বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরা চোখের ছানি দূর করালে উন্নয়ন দেখতে পাবে বলে মন্তব্য করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

বুধবার সকালে দেশের ৪৫টি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কমিউনিটি ভিশন সেন্টারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী অনেক উন্নয়ন করেছেন। কিন্তু আমাদের বিরোধীরা সে উন্নয়নগুলো চোখে দেখে না। আমার মনে হয়, কমিউনিটি ভিশন সেন্টারে বা আমাদের চক্ষু ইনস্টিটিউটে এসে চক্ষু পরীক্ষা করিয়ে, ছানি দূর করতে পারলে সব উন্নয়ন কাজ তারা ভালো করে দেখতে পারবে।

তিনি বলেন, প্রতিবেশী দেশের তুলনায় আমাদের অবস্থা ভালো। পঞ্চাশোর্ধ্ব জনগোষ্ঠীর মধ্যে অন্ধত্বের হার ভারতে পৌনে ২ শতাংশ ও নেপালে আড়াই শতাংশ। সেখানে আমাদের দেশে দেড় শতাংশ। ত্রিশোর্ধ্ব জনগোষ্ঠীর মধ্যে পাকিস্তানে অন্ধত্বের হার পৌনে ৩ শতাংশ, আমাদের দেশে শূন্য দশমিক ৭ শতাংশ।

এ সময় চোখের চিকিৎসায় সরকারের নেওয়া নানা উদ্যোগগুলো তুলে ধরেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। 
লন্ডন মহানগর যুবলীগ নেতা আরিফুল ইসলাম ও হোসাইন আহমকে সংবর্ধনা প্রদান

লন্ডন মহানগর যুবলীগ নেতা আরিফুল ইসলাম ও হোসাইন আহমকে সংবর্ধনা প্রদান


লন্ডন মহানগর যুবলীগের সাংঠনিক সম্পাদক আরিফুল ইসলাম ও আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক হোসাইন আহমদের স্বদেশ আগমন উপলক্ষে চন্দরপুর ওয়ার্ড ছাত্রলীগ-যুবলীগ ও আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছ।

মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারী) রাতে প্রাণবন্ত আয়োজনের মধ্য দিয়ে সাবেক এ গোলাপগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগ নেতাদের সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।

এসময় যুক্তরাজ্য প্রবাসী কফিল উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও ইউপি সদস্য সালমান কাদের দিপুর পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন গোলাপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য সেলিম উদ্দিন, বুধবারীবাজার ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আফজল হোসেন, গোলাপগঞ্জ উপজেলা তাঁতী লীগের সহ-সভাপতি আলী হোসেন, সমাজকর্মী বাহার উদ্দিন, যুবলীগ নেতা সাইফুল হক, ফয়সল মাহমুদ, আলী হোসেন রাদিস প্রমুখ।

এসময় বক্তারা সাবেক এ ছাত্রলীগ নেতাদের সাংগঠনিক কার্যক্রম তুলে ধরে তাঁদের ভূয়সী প্রশংসা করেন। সমাজকর্ম থেকে রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে তাঁদের অবদান তুলে ধরে তৃনমূল নেতা-কর্মীকে একই পথ অনুসরণ করার আহবান জানান বক্তারা। এসময় উপস্থিত সকলে সংবর্ধিত অতিথিবৃন্দের হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন এবং তাঁদের প্রবাস জীবনের মঙ্গল কামনা করে উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ প্রার্থনা করেন। 
 
অনুষ্ঠানে আরোও উপস্থিত ছিলেন- যুবলীগ নেতা সালেহ আহমদ, তারেক আহমদ, সুহেল আহমদ, কাওছার আহমদ, ছাত্রলীগ নেতা শিপলু আহমদ, পাপ্পু আহমদ, সায়েক রহমান, সুজেল আহমদ, রাহী, শাহীন, রেদওয়ান, লাভলু, মুহিব সুন্নাহ-সহ চন্দরপুর ওয়ার্ড ছাত্রলীগ-যুবলীগ ও আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ।