সৌদি আরবের ভিসা হাতে খুশি মনে ফিরছিলেন জুনেদঃ কিন্তু ভাগ্য বড় নির্মম!

সৌদি আরবের ভিসা হাতে খুশি মনে ফিরছিলেন জুনেদঃ কিন্তু ভাগ্য বড় নির্মম!



জকিগঞ্জ সড়কের বারহাল এলাকায় মাইক্রোবাস দুর্ঘটনায় নিহত জুনেদ আহমদের সৌদি আরব যাওয়ার স্বপ্ন এক নিমিষেই ভেস্তে গেলো খাঁদের জলে।

দৌলতপুর গ্রামের আব্দুল মানিকের ছেলে নিহত জুনেদ আহমদ (৩৩) হাতে সৌদি আরবের ভিসা নিয়েই বাড়ি ফিরছিলেন বলে জানা গেছে। 


রিফাত আহমদ নামের একজন ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে জানিয়েছেন, মৃত জুনেদ আহমদ আমাদের অফিস থেকে সৌদি আরবের ভিসা এবং পাসপোর্ট নিয়ে প্রায় ৪.৩০ মিনিটের দিকে রওনা দেন। আগামী রোববারে আবার আসার কথা ছিলো সৌদি আরবের মেডিকেল দেওয়ার জন্য!

কিন্তু ভাগ্যের নির্মম পরিহাস, জুনেদ আহমদ ও তার পরিবারের স্বপ্ন এক নিমিষেই শেষ হয়ে গেলো। 

বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে জকিগঞ্জ-সিলেট সড়কের বারহাল ইউনিয়নাধীন শাহবাগের নিজগ্রাম এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।


দুর্ঘটনায় নিহতরা হলেন, বারঠাকুরী ইউনিয়নের দৌলতপুর গ্রামের আব্দুল মানিকের ছেলে জুনেদ আহমদ (৩৩), সুলতানপুর ইউনিয়নের গণিপুর গ্রামের আব্দুল মতিনের ছেলে মো. সামেল মিয়া (৩০), একই ইউপির ছয়ঘরী গ্রামের অরুন বিশ্বাসের ছেলে শিপন বিশ্বাস (৩৬)।
Previous Post Next Post
>
>