কাগজের তৈরি নৌকা দিয়ে নৌকাবাইচ (ভিডিও)

কাগজের তৈরি নৌকা দিয়ে নৌকাবাইচ (ভিডিও)


‘কাগজের নৌকা পানিতে ভাসে’ - এ কথা ছোট-বড় সবারই জানা। তবে কাগজের নৌকায় মানুষ চড়ে বেড়ানোর কথা কল্পনাতীত। আশ্চর্যজনক হলেও সত্যি, এই অসাধ্যই সাধন হয়েছে উত্তর ইউরোপের দেশ লাটভিয়ায়। ফেলে দেয়া কাগজের প্যাকেট দিয়ে নৌকা বানিয়ে এতে শুধু চড়েই ক্ষান্ত থাকে না দেশটির জেলগাভা শহরের বাসিন্দারা। কাগজের নৌকা দিয়ে আয়োজিত হয় নৌকা বাইচের প্রতিযোগিতাও।

ফেলে দেয়া দুধের প্যাকেট দিয়ে তৈরি নৌকা দিয়ে আয়োজিত হয় ঐতিহ্যবাহী নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতা।


লাটভিয়ার জেলগাভা শহরে দুধের কার্টন দিয়ে তৈরি নৌকা দিয়ে প্রতি বছরই আয়োজিত হয় ঐতিহ্যবাহী এই প্রতিযোগিতা। এর আঞ্চলিক নাম ‘রেগাট্টা’। যার বাংলা মানে হচ্ছে নৌকা বাইচ।

নিয়ম অনুযায়ী, এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী প্রতিটি দলকে একটি করে ওয়াটারক্রাফ্ট তৈরি করতে হয়, যা দলের ক্রুদের নিয়ে পানিতে অনায়াসে ভাসতে সক্ষম। সেইসাথে তাদের নৌকা এবং রাফটের সাজসজ্জার ক্ষেত্রে সৃজনশীলতা প্রদর্শনও এই প্রতিযোগিতার একটি অংশ।

তবে শর্ত হচ্ছে, অংশগ্রহণকারীরা নৌকা চালানোর জন্য কোনো মোটর, প্রযুক্তি বা মেশিন ব্যবহার করতে পারবেন না। কেবল মানব শক্তির সাহায্যে চালাতে হবে এই নৌকা।


জেলগাভা সিটি মিউনিসিপ্যাল ইনস্টিটিউশন ‘কালচার’-এর প্রকল্প ব্যবস্থাপক ইয়ানা বখমান বলেন, এই বছর রেগাটার জন্য প্রায় ৩০ হাজার ফেলে দেয়া দুধের কার্টন ব্যবহার করা হয়েছে। নৌকা নির্মাণের উপকরণগুলি একটি খাদ্য কোম্পানি সরবরাহ করেছে, যারা প্রায় প্রতিবারই বার্ষিক রেগাট্টা আয়োজনে সাহায্য করে।

দুধ, রুটি এবং মধু দিবস উদযাপনের অংশ হিসেবে ঐতিহ্যবাহী এই প্রতিযোগিতা লিলুপ নদীর পারে অনুষ্ঠিত হয়। যে কেউ নৌকা তৈরি করে ফ্লোট-আউটে অংশ নিতে পারেন।


২০০২ সালে প্রথম এই রেগাট্টা প্রতিযোগিতার আয়োজন হয়েছিল দেশটিতে। সে সময় এই প্রতিযোগিতায় ১০টি রাফ্ট অংশ নিয়েছিল। যার নির্মাণের জন্য ১৫ হাজার ফেলে দেয়া প্যাকেট ব্যবহার করা হয়েছিল। প্রতিবারের ন্যায় এবার ১৯তম রেগাট্টা প্রতিযোগিতা আয়োজিত হয়েছে।


সৌজন্যেঃ আরটিভি
Previous Post Next Post
>
>